ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের বিধান রাখায় শার্শায় ছাত্রলীগের আনন্দ র‌্যালী

46

মোঃ সেলিম রেজা তাজ,ব্যুরো চীফঃ ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের বিধান করে মন্ত্রীসভায় সংশোধিত “নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০” এর খসড়া চুড়ান্ত অনুমোদন দেওয়ায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শার্শা উপজেলা শাখা’র পক্ষ থেকে শার্শায় এক আনন্দ র‍্যালী বের করা হয়।

মঙ্গলবার(১৩ অক্টোবর) বিকাল ৩ টার দিকে শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি- মোঃ আব্দুর রহিম সর্দার এবং সাধারন সম্পাদক- ইকবাল হোসেন রাসেল এর নেতৃত্বে আনন্দ র‍্যালীতে অংশ নেন ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি আ.লীগ,যুবলীগ ও অন্যান্য আ.লীগ অঙ্গ সংগঠনের নেতা-নেতৃবৃন্দ। আনন্দ র‍্যালীটি নাভারন- সাতক্ষীরা মোড় থেকে শুরু করে প্রায় ১ কিলোমিটার দুরত্ব নাভারন ডিগ্রি কলেজ সম্মুখে এসে শেষ হয়। স্বত:স্ফুর্ত এই আনন্দ র‍্যালীটিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে মুহুর্মুহু আনন্দ শ্লোগানে র‍্যালীটি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। র‍্যালীটি কলেজ সম্মুখে আসার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানিয়ে স্বাগতিক বক্তব্য দেন,শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগেরর সভাপতি আব্দুর রহিম সর্দার।
অন্যান্য দের মধ্যে বক্তব্যে অংশ নেন-শার্শা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান-সোহরাব হোসেন,স্থানীয় সিনিয়র সাংবাদিক- আমিনুর রহমান সহ অন্যান্য ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় দেশব্যাপী ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মানব বন্ধন এবং বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। ঘটনাটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র দৃষ্টি গোচর হওয়ায় ধর্ষকদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড করতে সংশোধিত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ এর খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া হয়।

সোমবার(১২ অক্টোবর) মন্ত্রিসভার ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে অধ্যাদেশের একটি ধারা সংশোধন করে যাবজ্জীবন ছাড়াও মৃত্যুদন্ডের বিধান রাখা হয়।